মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
Logo মুহাম্মদ হেমায়েত উদ্দিন সেলিম এর (১৯৫৫-১৯৮৫) ৩৬তম মৃত্যু বার্ষিকী আজ৷ Logo কাশিমপুরে পুজা মন্ডবের হামলাকারী ২০ জনকে আটক করায় আসাদুজ্জামান তুলার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ। Logo চিরিরবন্দরে ফজলুর রহমান স্মৃতি পাঠাগার এর নির্বাহী কমিটির আগামী রোববার আলোচনা সভা। Logo গাজীপুরে ডাকাতির প্রস্ততিকালে ডাকাত দলের ৪ সদস্য আটক Logo গাইবান্ধায় মশার কয়েলের আগুনেঃ গোয়াল ঘরের গরুসহ ভষ্মিভূত। Logo কাহারোলে নিখোঁজ যুবককে উদ্ধারে নেমেঃ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরির মৃত্যু Logo গাইবান্ধায় এক কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। Logo চিরিরবন্দরে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় Logo জয়পুরহাটে ডাকাতি সংঘটনের ৭ ঘন্টার মধ্যে মালামাল ও দেশীয় অস্ত্রসহ ৩ জন আটক। Logo নীলফামারী থেকে হারানো শিশুকে উদ্ধার করেঃ মা-বাবা কাছে ফিরিয়ে দিলো রাশাস।

বিধবার লাশ নিলো না পরিরার,দাফন করলেন ছাত্রলীগ

কাশিমপুর বার্তা ২৪ ডেস্ক / ৬৫ বার পঠিত
সময় : রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১, ২:১২ অপরাহ্ণ

স্টাফ রিপোর্টার-

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মৃত্যু হয় অসহায় ফাতেমা বেওয়া( ৫২)নামেএক বৃদ্ধ নারীর।কিন্তু বৃদ্ধার লাশ পরিবার নিতে অস্বীকৃতি জানায় টাকার অভাবে।এসময় ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্যরা ঐ বৃদ্ধার লাশ দাফন কার্য সম্পাদন করে। শনিবার ১৭ জুলাই রাত এগারোটার দিকে ফুলবাড়ী কবরস্থানে ওই বৃদ্ধার মরদেহ দাফন করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার দাশিয়ারছড়ার সমন্বয় পাড়া এলাকার মৃত বানু মামুদের মেয়ে ফাতেমা বেওয়া (৫২)। স্বামীর বাড়ি লালমনিরহাটের ছিনাই এলাকায়। অভাবের সংসার। এক ছেলে ও এক মেয়ের বিয়ে হয়ে গেলে দুসন্তানই ঢাকায় চলে যান। সেখানে তারা গার্মেন্টসে কাজ করেন। বছর খানিক আগে স্বামী আজাহার আলী মারা গেলে ফাতেমা বেগম তার বাবার বাড়িতে ভাইদের কাছে চলে আসেন। ফাতেমার ভাই ভ্যানচালক ইনসান আলী, হোটেল শ্রমিক দানেশ আলী ও দিনমজুর ইউনুস আলী। ভাইয়েরাও একদম গরিব হওয়ায় প্রায় তিন মাস আগে ফাতেমার ঠিকানা হয় ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। সেখানে দির্ঘদিন থাকার পর শনিবার বিকেলে মারা যান।

ফাতেমার মৃত্যুর পর ফুলবাড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান খোঁজ খবর নিয়ে তার পরিবারের লোকজনের সাথে কথা বলে অনেক চেষ্টা করলেও কেউ লাশ নিতে রাজি হয়নি। পরে উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্যদের সাথে নিয়ে লাশ দাফনের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। রাত দশটায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মসজিদের সামনে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। শেষে ফুলবাড়ী কবরস্থানে নিয়ে গিয়ে লাশ দাফন কার্য সম্পন্ন করেন।

ফাতেমার ভাই ইনসান আলী ও দানেশ আলী বলেন, হাসপাতাল থেকে লাশ বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার মত টাকা পয়সা আমাদের নাই। তাছাড়া লাশ দাফন করতে গেলেও খরচ আছে। আমাদের তো নিজেরই থাকার জায়গা নাই আমরা লাশ নিয়ে গিয়ে কি করবো। তাই এনারা এখানেই কবরস্থানে দাফন করলেন।

সুত্রঃজেএসটিভি

সংবাদটি শেয়ার করুন :
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD