রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
Logo চিরিরবন্দরে ফজলুর রহমান স্মৃতি পাঠাগার এর নির্বাহী কমিটির আগামী রোববার আলোচনা সভা। Logo গাজীপুরে ডাকাতির প্রস্ততিকালে ডাকাত দলের ৪ সদস্য আটক Logo গাইবান্ধায় মশার কয়েলের আগুনেঃ গোয়াল ঘরের গরুসহ ভষ্মিভূত। Logo কাহারোলে নিখোঁজ যুবককে উদ্ধারে নেমেঃ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরির মৃত্যু Logo গাইবান্ধায় এক কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। Logo চিরিরবন্দরে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় Logo জয়পুরহাটে ডাকাতি সংঘটনের ৭ ঘন্টার মধ্যে মালামাল ও দেশীয় অস্ত্রসহ ৩ জন আটক। Logo নীলফামারী থেকে হারানো শিশুকে উদ্ধার করেঃ মা-বাবা কাছে ফিরিয়ে দিলো রাশাস। Logo বালুবোঝাই ট্রলারের সঙ্গে যাত্রীবোঝাই সংঘর্ষে ট্রলার নিহত ২১;আহত ০৬। Logo চিরিরবন্দরে মা-ছেলেকে গ্রেপ্তারের ঘটনায়ঃ আসামি সিআইডির এএসপি সারোয়ার সহ জামিন নামঞ্জুর।

কোনাবাড়ি পপুলার হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় আড়াই বছরের শিশুর মৃত্যু

বিপ্লব মাতাব্বর নিজস্ব প্রতিনিধি / ৩৬৬ বার পঠিত
সময় : বুধবার, ১৪ জুলাই, ২০২১, ৮:৫৬ পূর্বাহ্ণ

গাজীপুরের কোনাবাড়ি পপুলার হাসপাতালে ভুল অপারেশনে আরাফাত হোসেন (২ বছর ৬ মাসের) একশিশুর মৃত্যু হয়েছে। নিহত আরাফাত একই জেলার কালিয়াকৈরের চাঁনপুর জালুয়াভিটি গ্রামের মোঃ সাদ্দাম হোসেনের ছেলে। পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানায়, গেল (১০ জুলাই) সকালে আরাফাত হোসেনকে ডান পায়ে রানের উপরের অংশে একটি ফোড়ার চিকিৎসার জন্য যান। সেখানকার নার্স ও মালিক পক্ষের লোকজন আরাফাত হোসেনের বাবা সাদ্দাম হোসেনকে একাধিক টেস্ট করার জন্য স্লিপ ধরিয়ে দেন। পরে সাদ্দাম হোসেনের ৪-৫টা টেষ্ট ওই হাসপাতালেই করে রিপোর্ট সেই কাউন্টারে জমা দেন। এরপর কাউন্ট থেকে তাকে বলা হয় ছেলের অপারেশন করতে হবে। সেই দিন রাতেই একজন নার্স আরাফাত হোসেনের ফোড়া অপারেশন করে সিটে থাকার জন্য ভর্তি করেন। সেই রাতেই আরাফাত হোসেনের প্রচন্ড ব্যথা অনুভব করতে থাকলে চিৎকার করতে থাকে। এসময় বাবা সাদ্দাম হোসেন পাগলের মত কাউন্টারে গিয়ে বিষয়গুলো জানালে দায়িত্বরত নার্সরা শিশুকে ডোস দিতে অনুরোধ করেন। পরের দিন (১১ জুলাই) সকালে আরাফাত হোসেন অচেতন হয়ে সিটে পড়ে থাকলে সুকৌশলে এ হসপিটালের মালিক নজরুল ইসলাম পরামর্শে সাড়ে ১৩ হাজার টাকার বিল ধরিয়ে দেন হাসপাতালের কর্মকর্তারা। পরে সাদ্দাম হোসেন টাকা পরিশোধ করলে আরাফাত হোসেনকে অক্সিজেন লাগিয়ে গাজীপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। শিশু আরাফাত হোসেনকে হাসপাতালে নেওয়ার পথেই মারা যায়। এঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে আত্নীয় স্বজনেররা ছুটে আসেন। পরে গাজীপুর সদর হাসপাতালে ময়না তদন্ত শেষে (১২ জুলাই) বিকেলে গ্রামের বাড়িতে আরাফাত হোসেনের দাফন সম্পন্ন করেন। নিহত শিশুর বাবা সাদ্দাম হোসেন জানান, কোনাবাড়ি পপুলার হসপিটালের লোকজন আমার ছেলে আরাফাত হোসেনকে ভুল অপারেশন করে মেরে ফেলেছে। তিনি বলেন, আমার ছেলের চিকিৎসা একজন সার্জেন বা দক্ষ চিকিৎসক (এমবিবিএস) ছাড়াই করার কারণে মৃত্যু হয়েছে। আমি এই হত্যাকারীদের বিচার চাই। কোনাবাড়ি মেট্রো থানার ওসি আবু সিদ্দিক জানান, এরকম একটি ঘটনা শুনেছি। নিহত শিশুর ময়নাত তদন্ত হয়েছে। তবে আমাদের থানায় কেউ আসেনি। রোগির অভিভাবক অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ব্যাপারে কোনাবাড়ি পপুলার হাসপাতালের কর্তৃপক্ষ মোঃ নজরুল ইসলাম জানান, হয় ওইডাতো হইছে এডাতো আর কিছু করার নাই আমিতো আর অপারেশন করি নাই একটু ফাইরা দিছি।

(জসবড)

সংবাদটি শেয়ার করুন :
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD