শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
Logo চিরিরবন্দরে ফজলুর রহমান স্মৃতি পাঠাগার এর নির্বাহী কমিটির আগামী রোববার আলোচনা সভা। Logo গাজীপুরে ডাকাতির প্রস্ততিকালে ডাকাত দলের ৪ সদস্য আটক Logo গাইবান্ধায় মশার কয়েলের আগুনেঃ গোয়াল ঘরের গরুসহ ভষ্মিভূত। Logo কাহারোলে নিখোঁজ যুবককে উদ্ধারে নেমেঃ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরির মৃত্যু Logo গাইবান্ধায় এক কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার। Logo চিরিরবন্দরে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় Logo জয়পুরহাটে ডাকাতি সংঘটনের ৭ ঘন্টার মধ্যে মালামাল ও দেশীয় অস্ত্রসহ ৩ জন আটক। Logo নীলফামারী থেকে হারানো শিশুকে উদ্ধার করেঃ মা-বাবা কাছে ফিরিয়ে দিলো রাশাস। Logo বালুবোঝাই ট্রলারের সঙ্গে যাত্রীবোঝাই সংঘর্ষে ট্রলার নিহত ২১;আহত ০৬। Logo চিরিরবন্দরে মা-ছেলেকে গ্রেপ্তারের ঘটনায়ঃ আসামি সিআইডির এএসপি সারোয়ার সহ জামিন নামঞ্জুর।

করোনা প্রাদুর্ভাব ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা

কাশিমপুর বার্তা ২৪ ডেস্ক / ১২৭ বার পঠিত
সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল, ২০২১, ১০:০২ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মহামারী করোনা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। গাজীপুর মহানগরীর কোনাবাড়ি এলাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের এমনই অভিযোগ। ২২,এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) গণমাধ্যম কর্মীদের ব্যবসায়ীক নেতারা জানান, গত বছর দীর্ঘ লকডাউনে ব্যবসায় অনেক আর্থিক ক্ষতি হইছে সেই লোকসান এখনো পুষিয়ে উঠতে পারেনি ব্যবসায়ীরা। এছারা দেশে দীত্বিয় বারের মতো এবছর ১৪ এপ্রিল থেকে টানা সাতদিন কঠোর লকডাউন থেকে বাড়িয়ে তা ২৮ এপ্রিল মধ্যে রাত অবধি বাড়ানো হয়েছে। এসময় সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান, পোশাক কারখানা সহ খাদ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সহ কিছু শিল্প কারখানা চালু থাকলেও হাটবাজার চলছে সিমিত পরিসরে। এছাড়া বন্ধ রয়েছে স্কুল কলেজ, দোকানপাট, সপিংমল ও গণপরিবহন। কোনাবাড়ি নতুন বাজার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সভাপতি মোঃবেলায়েত হোসেন ও ব্যবসায়ী মোঃআব্দুল আলিম, বাদশা মিয়া, মোঃরুবেল মিয়া,মোঃনূরু মিয়া, মোঃকামাল হোসেন জানান সরকার পোশাক কারখানার মতো তাঁদেরও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসা করার সুযোগ করে দিতে সরকারের কাছে আহবান জানান। তারা আরো বলেন ব্যবসায়ীরা বছরে দুই ঈদকে সামনে রেখে সারা বছরের প্রায় ষাট ভাগ বেচাকেনা করে থাকেন। ঈদকে কেন্দ্র করে লক্ষ লক্ষ টাকার কাপর কিনে টেইলার্সের মাধ্যমে পোশাক তৈরি করেন। ইতিমধ্যে তৈরি পোশাক তৈরি করতে না পারায় লোকসানের আশংকা করছেন ব্যবসায়ীরা। এছাড়া গণপরিবহন চলাচল না করায় কোন পাইকার আসতে পারছেনা। এতকরে লকডাউন এর পূর্বে তৈরি করা পোশাক বিক্রয় করতে না পারায় মূলধন আটকে আছে এসব ব্যবসায়ীদের।এছাড়া
লকডাউনে কাজ করতে না পেরে অসংখ্য শ্রমিক বেকার হয়ে পড়েছে। ইতিমধ্যে অনেকে পরিবার নিয়ে অতিকষ্টে দিনাতিপাত করছে। এছাড়া ব্যবসায়ীদের দোকান ভাড়া ও এনজিও ঋণের চাপে দিশেহারা হয়েপড়েছে। ব্যবসায়ীদের দাবী সরকার বৈষম্য দূর করে ব্যবসায়ে সমতা তৈরি করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ব্যবসার করার জন্য জোর আবেদন জানান ক্ষতিগ্রস্ত এসব ব্যবসায়ীরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন :
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD